অল্পতেই মেয়েরা বেশি মোটা হওয়ার ৬টি কারন জে’নে নিন

বিশ্বজুড়ে স্থূলতার মোটা (fat) হওয়ার হার ক্রমেই বাড়ছে। আর এক্ষেত্রে পু’রুষদের তুলনায় মেয়েদের ওবেসিটির হার বেশি। আরও অ’বাক করার বিষয় হচ্ছে শহরের মেয়েরাই (female) এই স্থূলতার স’মস্যায় বেশি ভুগে থাকেন।

আর বাড়তি ওজনের (weight) কারণে বাড়ছে ডায়াবেটিস, উচ্চ র’ক্তচা’প, হার্টের অসুখ, স্ট্রোক ও ক্যানসারের মতো বড় বড় ব্যাধিও। অকালে মৃ’ত্যুবরণ করছেন অনেকে।

স’ম্প্রতি কিছু গবেষণায় দেখা গিয়েছে, শহরের মেয়েরা গ্রামের মেয়েদের তুলনায় বেশি মোটা (fat) হয়। মুটিয়ে যাওয়ার স’ঙ্গে শহরের জীবনযাপন, খাদ্যাভ্যাস, পরিবেশদূষণ ও জিনগত কারণ দায়ী।

মেয়েরা অল্পতেই মোটা হয় কেন?শহরের মেয়েরা সকালের ব্রেকফাস্ট (breakfast) নিয়মিত করে না। সকালের ব্রেকফাস্ট না খেলে মোটা হওয়ার ঝুঁ’কি বাড়ে।

শহর এলাকার মেয়েরা টিভি, ল্যাপটপ, ফোনে সময় বেশি দেয়। শহরের মেয়েরা গাড়ির (car) ব্যবহার বেশি করে, কম হাঁটে। এটি তাদের স্থূল করে তোলে।তারা মাছ কম, মাংস জাতীয় খাবার ও সফট ড্রিঙ্ক (drink) জাতীয় পানীয় বেশি খায়। এতে ওজন বেড়ে যায়।শহরের মেয়েরা রাতের খাবার দেরি করে খায়।

সাইকোলজি টুডের গবেষণায় দেখা যায়, রাতের খাবার দেরি করে খেলে মোটা (fat) হওয়ার ঝুঁ’কি বেড়ে যায়। এ ছাড়া শহরের মেয়েরা রাত জাগে, ঘুমায় কম। এটিও তাদের মোটা হওয়ার জন্য দায়ী।

চকলেট, চিপস, আইসক্রিম বেশি খায়। এই অভ্যাস তাদের মোটা করে দেয়। এছাড়া হরমোনের স’মস্যাও মোটা হওয়ার একটি বড় কারণ। শহরের দূষিত পরিবেশ ও জিনগত কারণ অনেকাংশে মেয়েদের মোটা হওয়ার জন্য দায়ীএমনটাই উঠে এসেছে বিভিন্ন গবেষণায়।

আমাদের পোষ্টগুলো আপনার বিন্দু মাত্র উপকারে আ’সলে শেয়ার করবেন প্লিজ। আপনাদের কোন অ’ভিযোগ বা প্রশ্ন থাকলে কমেন্টে ক’রতে পারেন।ধণ্যবাদ অনলাইন রেজাল্টবিডি হেল্থ.কম এর পক্ষ থেকে।